Nabanna Scholarship Online Apply: রাজ্যের নবান্ন স্কলারশিপের আবেদন করলেই পড়ুয়ারা পেয়ে যাবে 10,000 টাকা! জেনেনিন আবেদন পদ্ধতি

Sub-Editor
5 Min Read

Nabanna Scholarship Online Apply: রাজ্যে পুনরায় শুরু হতে চলেছে Nabanna Scholarship এর আবেদন প্রক্রিয়া। কারা কারা এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে? ছাত্র-ছাত্রীদের কত টাকা করে দেওয়া হবে এই স্কলারশিপের মাধ্যমে? কিভাবে আবেদন করতে হবে এর জন্য? সকল বিষয়েই নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। আর মাত্র কয়েক মাস পরেই শুরু চলেছে 2024 সালের মাধ্যমিক পরীক্ষা। আর এই সকল পরীক্ষার্থীদের জন্য দারুন ঘোষণা করল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। মাধ্যমিক পাশ করার পরে পরেইই পরীক্ষার্থীরা পেয়ে যাবে নগদ 10000 টাকার স্কলারশিপ। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিছুদিন আগেই চলতি শিক্ষাবর্ষের সকল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বার্তার মাধ্যমে ঘোষণা করেছেন এই কথা।

Nabanna Scholarship Online Apply 2024

রাজ্যের দুস্থ মেধাবী পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়াতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার একাধিকবার বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েই চলেছে, যাতে তারা শিক্ষাক্ষেত্রে কোনভাবে পিছিয়ে না পরে। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপ ইতিমধ্যেই চালু রয়েছে। যার দ্বারা উপকৃত হয়ে থাকে লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থী। উচ্চশিক্ষায় দারুনভাবে সহায়তা হয় তাদের। আবার করে পুনরায় এরকমই আরও একটি দারুন উদ্যোগ নেওয়া হল রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। রাজ্য সরকারের এই উদ্যোগ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানতে শেষ পর্যন্ত অবশ্যই পড়ুন।

Nabanna Scholarship Online Apply 2024
Nabanna Scholarship Online Apply 2024

কি এই নবান্ন স্কলারশিপ? What is the Nabanna scholarship in West Bengal?

Nabanna Scholarship হলো দেশের দরিদ্র মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিক সাহায্যার্থে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে চালু করা একটি উল্লেখযোগ্য স্কলারশিপ স্কিম। এই Nabanna Scholarship টি মূলত চালু হয় কেন্দ্রীয় সরকারের দ্বারা যার নাম ন্যাশনাল স্কলারশিপ স্কিম। আমাদের রাজ্য সরকার এটিকে নবান্ন বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপের (Uttarkannya Scholarship) নাম দিয়েছে। যে সকল দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীরা মাধ্যমিকের পর উচ্চশিক্ষা বা কোনো প্রশিক্ষণ অনুসরণ করে, তাদেরকে এই সরকারি সাহায্য প্রদান করা হয়। এই Nabanna Scholarship এর টাকা সরাসরি প্রার্থীদের ব্যাংক একাউন্টে মেলে ।

এই স্কলারশিপের মাধ্যমে কত টাকা করে দেওয়া হয়?

১. মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক এবং স্নাতক স্তরে পাঠ্যরত ছাত্র ছাত্রীরা এই Nabanna Scholarship-এর মাধ্যমে বার্ষিক 10,000 টাকা করে বৃত্তি পেয়ে থাকে।

২. স্নাতকোত্তর স্তরের পড়ুয়ারা এই Nabanna Scholarship এর মাধ্যমে বার্ষিক 12,000 টাকা করে বৃত্তি পেয়ে থাকে।।

নবান্ন স্কলারশিপ আবেদন করতে কি কি যোগ্যতার প্রয়োজন?

১. এই Nabanna Scholarship এর আবেদন করতে গেলে আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।

২. মাধ্যমিক পরীক্ষায় সর্বনিম্ন 65% নম্বর [H.S. স্তরে] পেতে হবে, H.S. পরীক্ষায় সর্বনিম্ন 60% মোট নম্বর [U.G. স্তরে] পেতে হবে এবং স্নাতকে পরীক্ষার্থীদের অনার্স বিষয়ে 55% নম্বর [P.G. স্তরে] পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।

৩. অবশ্যই পরিবারের বার্ষিক আয় 60 হাজার টাকার কম হতে হবে।

৪. ছাত্রছাত্রীদেরকে রাজ্য সরকার বা কেন্দ্রীয় সরকার স্বীকৃত যেকোন বোর্ড অথবা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অধ্যায়নরত হতে হবে।

৫. শেষ বছরে একই কোর্স বা অধ্যয়নের সময়ে ছাত্র-ছাত্রীরা অন্য কোন সরকারি (কেন্দ্রীয় / রাজ্য) স্কলারশিপ বা বৃত্তি পেয়েছে কিনা তা যাচাই করার পরেই এই স্কলারশিপের টাকা প্রদান করা হবে।

কি কি নথি লাগবে? What documents are attached to Nabanna scholarship?

১. ব্যাঙ্কের বিবরণ পূরণের জন্য নিজস্ব ব্যাঙ্ক পাসবুক বা অ্যাউন্ট নাম্বার,

২. আধার নম্বর,

৩. প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতার নথিপত্র,

৪. পারিবারিক বার্ষিক আয়ের শংসাপত্র,

৫. একটি ই-মেইল আইডি ও চালু মোবাইল নম্বর,

৬. প্রয়োজন অনুসারে জাতিগত শংসাপত্র,

৭. প্রতিবন্ধী হলে তার শংসাপত্র,

৮. বর্তমানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার পেমেন্ট রিসিপ্ট কপি।

আবেদন প্রক্রিয়া (How To apply for Nabanna Scholarship)

১. Nabanna Scholarship এর আবেদন করার জন্য প্রথমে www.wbcmo.gov.in এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে।

২. রেজিস্ট্রেশন লিংকের উপর ক্লিক করে প্রয়োজনীয় তথ্য যেমন নিজের নাম, ফোন নাম্বার, ইমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড এইসব দিয়ে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। যাদের আগে থেকে রেজিস্ট্রেশন করা আছে, নতুন করে রেজিস্ট্রেশন করার প্রয়োজন নেই।

৩. তারপর নিজের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে পেজটি লগইন করতে হবে।

৪. Apply Now বাটনে ক্লিক করে আবেদনের এই পেইজটিতে আসতে হবে।

৫. সঠিকভাবে সকল তথ্য দিয়ে আবেদন পত্র পূরণ করতে হবে।

৬. প্রয়োজনীয় নথিপত্র গুলো স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে।

৭. সবকিছু হয়ে গেলে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলেই আবেদনের কাজ শেষ। এরপর দরকারি কাগজপত্র গুলির একটি করে হার্ডকপি প্রিন্টআউট করে নিতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা (nabanna scholarship 2024 last date)

এই Scholarship এর আবেদন প্রক্রিয়া এখনো শুরু হয়েছে নাকি সে বিষয়ে জানা যায়নি। আগ্রহী প্রার্থীদের অনুরোধ করা হচ্ছে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে বিস্তারিতভাবে সকল তথ্য পুনরায় জানতে। যদি আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যায়, তবে যত শীঘ্রই সম্ভব আবেদন সেরে ফেলতে পারেন।

Share This Article
Hello Friends, I am Achhir Ali Sub-Editor of News Connectors from Kolkata, West Bengal. I am a Blogger, Web Designer, Graphics Designer and Social Media Ads Expert. I am Working in this field since last 5 years.
Leave a comment