Karachi To Noida Teaser: ‘পাকিস্তানি এজেন্ট নাকি ভারতীয় গুপ্তচর’? মুক্তি পেলো সীমা হায়দারের ‘করাচি টু নয়ডা’ ছবির ট্রেলার

Sub-Editor
4 Min Read

Karachi To Noida Teaser: যে ছবির জন্য দর্শকরা দীর্ঘ্য দিন থেকে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন, আজ সেই ছবির ট্রেইলার মুক্তি পেয়েছে YouTube-এ। এই ছবির মূল বিষয় সীমা হায়দার (Seema Haider)। গত কয়েকদিন ধরেই সীমা হায়দারকে নিয়ে নানা প্রকার কথা বলা হচ্ছে।

টিভি এন্টারটেইনমেন্ট সেক্টর হোক বা সোশ্যাল মিডিয়া, সবাই সীমা হায়দারকে নিয়ে পাগল। বলিউড নির্মাতারা সীমা হায়দারের বিষয় নিয়ে একটি চলচ্চিত্র বানাতে চেয়েছিলেন এবং তারা করাচি থেকে নয়ডা (Karachi To Noida) নামে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন। আজ এর ট্রেলার প্রকাশিত হয়েছে এবং এটি নিয়ে প্রচুর আলোচনা চলছে।

Karachi To Noida Teaser

Karachi To Noida Teaser
Karachi To Noida Teaser

তিন মিনিটের এই ট্রেলারে এমন অনেক সংলাপ বলা হয়েছে যা বিতর্ক তৈরি করতে পারে। শুধু তাই নয়, পাকিস্তানি গুপ্তচর বলে সন্দেহ করা সীমাকে ট্রেলারে ISI নয়, বরং RAW এজেন্ট হিসেবে দেখানো হয়েছে।

নয়ডায় বসবাসকারী শচীনের প্রেমে পড়ে চার সন্তান নিয়ে পাকিস্তান থেকে ভারতে আসা সীমা হায়দারকে নিয়ে নির্মিত ‘করাচি টু নয়ডা’ ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। জানি ফায়ারফক্স তিন মিনিটের ট্রেলার প্রকাশ করেছে। ট্রেলারে সীমা হায়দারের চরিত্রের নাম রাখা হয়েছে সায়মা হায়দার। সীমা ছাড়াও তার পাকিস্তানি স্বামী গোলাম হায়দার, শচীন সহ আরও অনেক চরিত্রকেও ট্রেলারে দেখানো হয়েছে।

ছবিটি পরিচালনা করেছেন জয়ন্ত সিনহা, এবং প্রযোজনা করেছেন অমিত জানি এবং ভারত সিং। করাচি থেকে নয়ডা ছবির ট্রেলারে, ফারহিন ফালাক সীমা হায়দারের ভূমিকায় এবং আদিত্য রাঘব শচীন মীনার-এর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

Karachi to Noida Movie Star Cast

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবির টিজার শেয়ার করে এই ছবির স্টার কাস্ট সম্পর্কেও তথ্য দিয়েছেন অমিত জানি। এই ছবিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপ রাজ রানা, এহসান খান, রোহিত চৌধুরী, মনোজ বক্সি, ফারহিন ফালাক এবং আদিত্য রাঘব। জয়ন্ত সিনহা এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন, এবং অমিত জানি এবং ভারত সিং এই ছবিটি প্রযোজনা করেছেন। এই ছবির গল্প ও সংলাপ লিখেছেন অমিত জনি। এই ছবিতে সীমা হায়দারের চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেত্রী ফারহিন ফালাক।

Karachi to Noida Teaser সংলাপগুলো সকলের নজর কেড়েছে

কয়েকদিন আগে মিথিলেশ ভাটির সংলাপ ‘লাপ্পু সা শচীন, ঝিংগুর সা লড়কা’ (Lappu Sa Sachin, Jhingur Sa Ladka) সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। এখন ‘করাচি টু নয়ডা’ ছবির টিজারে, “Mere Pati ko Lappu Kahene Se Pehele Ppne Buddhe Ko Bhi dekh Lo. O Konsa Sunny Deol Hain?” সংলাপটি অনেকের নজর কেড়েছে। এছাড়া ‘করাচি টু নয়ডা’ ছবির টিজারের (Karachi To Noida Teaser) অন্যান্য সংলাপও সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Seema Haider and Sachin’s love story

সীমা ও শচীনের প্রেমের গল্প যেন সিনেমার গল্পের মতো। গত কয়েকদিন ধরে শুধু দেশেই নয় বিদেশেও চলছে তাদের প্রেমের গল্প। PUBG গেমিং অ্যাপের মাধ্যমে সীমা ও শচীনের কথা বার্তা হয়। প্রথমে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব হয় তারপর বন্ধুত্ব প্রেমে পরিণত হয়। শচীনের ভালোবাসায় পাকিস্তান ছেড়ে ভারতে চলে আসেন সীমা।

সীমা হায়দার কে?

সীমা হায়দার একজন পাকিস্তানি মহিলা যিনি সিন্ধু প্রদেশের বাসিন্দা। 27 বছর বয়সী সীমার পুরো নাম সীমা গোলাম হায়দার (Seema Ghulam Haider)। জানা গেছে, প্রথম বিয়ের পর স্বামী গোলাম হায়দারের সঙ্গে করাচিতে থাকতেন সীমা। তিনি দাবি করেছেন যে তার স্বামী তাকে ফোনে তালাক দিয়েছিলেন এবং এখন আর যোগাযোগ করছেন না।

তথ্যমতে, সীমার সাবেক স্বামী গোলাম হায়দার সৌদি আরবে চাকরি করেন। সীমা বর্তমানে গ্রেটার নয়ডার রাবুপুরার শচীন মীনার-এর সাথে বসবাস করছেন। চলতি বছরের শুরুর দিকে নেপালের কাঠমান্ডুতে শচীনকে দ্বিতীয়বার বিয়ে করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেন সীমা।

সীমা কিভাবে ভারতে এলো?

PUBG গেম খেলতে গিয়ে পরিচয় হয় সীমা ও শচীনের। করোনার সময় ভিডিও কলিংয়ের মাধ্যমে ঘনিষ্ঠতা বাড়ানোর পর, সীমা চলতি বছরের 13 মে পাকিস্তান থেকে নেপাল হয়ে ভারতে আসেন। তার সাথে তার চার সন্তানও এসেছে। তাঁরা সবাই রবুপুরার আম্বেদকর নগরে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে শচীনের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন। পুলিশের খবর পেয়েই সীমা তার চার সন্তান ও শচীনকে নিয়ে পালিয়ে যায়। গত 4 জুলাই হরিয়ানার বল্লভগড় থেকে সবাইকে পাকরাও করেছিলো পুলিশ।

Share This Article
Hello Friends, I am Achhir Ali Sub-Editor of News Connectors from Kolkata, West Bengal. I am a Blogger, Web Designer, Graphics Designer and Social Media Ads Expert. I am Working in this field since last 5 years.
Leave a comment