Ladli Behna Yojana 10th Installment Big Update: এদিন পাওয়া যাবে লাডলি বেহেনা যোজনার 10তম কিস্তি, জেনে নিন বিস্তারিত তথ্য

Sub-Editor
6 Min Read
Ladli Behna Yojana 10th Installment

Ladli Behna Yojana 10th Installment Big Update: মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান 5 মার্চ, 2023-এ একটি দুর্দান্ত স্কিম চালু করেছিলেন এবং যার নাম দিয়েছিলেন – Ladli Behna Yojana! এই প্রকল্পটি শুধুমাত্র অর্থ প্রদানের জন্য নয়, বোনদের আর্থিকভাবে শক্তিশালী করে পুরো পরিবারকে ক্ষমতায়ন করার বিষয়ে নজর দেওয়া হয়েছে। এতে শুধু ঘরে বোনদের সম্মানই বাড়বে না, সন্তানদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষারও খেয়াল রাখা হবে। Ladli Behna Yojana মহিলাদের ক্ষমতায়নের দিকে একটি বড় পদক্ষেপ, যার লক্ষ্য দেশকে আরও শক্তিশালী এবং সুখী করা।

এই প্রকল্পের অধীনে, দরিদ্র এবং প্রয়োজন সাপেক্ষ মহিলাদের দেওয়া প্রতি মাসের টাকার পরিমাণ ₹1,000 থেকে বাড়িয়ে ₹1,250 করা হয়েছে। এই অর্থ তাদের পরিবারের জন্য একটি উন্নত জীবন গঠনে সহায়ক প্রমাণিত হয়। এটি স্পষ্টভাবে প্রমাণ করে যে সরকার নারীদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়নে আন্তরিকভাবে জুড়ে রয়েছে।

Madhya Pradesh Ladli Behna Yojana

Ladli Behna Yojana 10th Installment Big Update
Ladli Behna Yojana 10th Installment
Name of the YojanaLadli Behna Yojana 
Ladli Behna Yojana Starting Date5th March, 2023
StateMadhya Pradesh
Ladli Behna Yojana Installment Date10th March, 2024
Type of ArticleGovernment Scheme
Amount of Ladli Behna Yojana Installment?₹ 1,250 Rs
Mode of Payment Status CheckOnline/DBT
Official Websitehttps://cmladlibahna.mp.gov.in/

মধ্যপ্রদেশ লাডলি বেহনা যোজনা হল নারীদের ক্ষমতায়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ গৃহস্থালী সিদ্ধান্তে জড়িত করার মধ্যপ্রদেশ সরকারের একটি দুর্দান্ত প্রচেষ্টা। এই প্রকল্পের লক্ষ্য হল নারীরা যেন তাদের জীবনে এবং তাদের সমাজে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে, আত্মনির্ভরশীল হয় এবং স্বাধীনতা উপলব্ধি করে।

আমরা আপনাকে বলি যে এই প্রকল্পের জন্য 25 মার্চ, 2023 থেকে আবেদন শুরু হয়েছে। সরকার প্রতিটি গ্রামে ক্যাম্পের আয়োজন করে রেজিস্ট্রেশনের সুবিধা দিয়েছে। এই শিবিরগুলি স্থাপন করা হয়েছে যাতে প্রতিটি অভাবী মহিলার কাছে প্রকল্পের সুবিধা পৌঁছে যায় এবং কেউ পিছিয়ে না থাকে।

Ladli Behna Yojana 10th Installment Big Update

মধ্যপ্রদেশ লাডলি বেহেন যোজনার অধীনে প্রদত্ত অর্থ প্রতি মাসের 10 তারিখে সুবিধাভোগী বোনদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়। এই বছর, 10ই মার্চ, 10 তম কিস্তি সরাসরি DBT এর মাধ্যমে সুবিধাভোগী মহিলাদের অ্যাকাউন্টে জমা করা হবে। তাই আপনার অ্যাকাউন্টে এই আনন্দময় সংবাদ দেখতে প্রস্তুত হয়ে যান!

আরও পড়ুনঃ E-Pramaan Portal: আর দাঁড়াতে হবেনা লাইনে, এবার ঘরে বসেই পাবেন সরকারি সুবিধা।

Ladli Behna Yojana Eligibility Criteria- কোন কোন বোনেরা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন?

এই স্কিমটি বা প্রকল্পটি বিশেষভাবে সেই সমস্ত মহিলাদের জন্য চালু করা হয়েছে, যাদের আর্থিক সাহায্যের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ৷ আসুন জেনে নেওয়া যাক এই প্রকল্পের জন্য কী কী যোগ্যতার প্রয়োজন:

  • মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা: শুধুমাত্র মধ্যপ্রদেশে বসবাসকারী মহিলারাই এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে পারেন।
  • বিবাহিত, বিধবা, তালাকপ্রাপ্ত বা আলাদা বসবাস: অনেক সময় বিবাহ সংক্রান্ত সমস্যার কারণে নারীদের আর্থিক অবস্থা দুর্বল হয়ে পড়ে। তাই এই সমস্ত ক্যাটাগরির মহিলারা এই স্কিম বা প্রকল্পের জন্য যোগ্য বলে মনে করা হয়েছে৷
  • বয়সসীমা 23 থেকে 60 বছর: নারীরা পরিবার ও সমাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই স্কিমটি এই বয়সের মহিলাদের আর্থিক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে তাদের অবদানকে শক্তিশালী করতে চায়।
  • দরিদ্র বা নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবার: যাদের বার্ষিক আয় 2.5 লক্ষ টাকার কম তারা এই প্রকল্পের জন্য যোগ্য। এর থেকে এটি নিশ্চিত যে শুধুমাত্র আর্থিক প্রয়োজনে থাকা পরিবারগুলিই এই সুবিধা পাবেন৷
  • জমি: ৫ একরের কম জমি রয়েছে এমন কৃষক পরিবারের মহিলারাও আবেদন করতে পারবেন। এর মাধ্যমে গ্রামীণ অর্থনীতির একটি বড় অংশ এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত হতে পারবে।
  • সমস্ত জাতি এবং সম্প্রদায়: সাধারণ বিভাগ, তফসিলি জাতি (SC), তফসিলি উপজাতি (ST) এবং অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণি (OBC) থেকে মহিলারা সকলেই এই প্রকল্পের জন্য যোগ্য। এর মাধ্যমে সমাজের প্রতিটি স্তরের নারীদের অর্থনৈতিকভাবে ক্ষমতায়ন করাই এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য।
  • প্রয়োজনীয় নথি: আধারের সাথে আইডি লিঙ্ক থাকা আবশ্যক। এর ফলে আবেদন প্রক্রিয়াটিকে নিরাপদ এবং সহজ করে তোলে।

How to apply for the MP Ladli Behna Yojana

1. রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি: প্রথমে আপনার এলাকায় একটি সরকারী রেজিস্ট্রেশন শিবির খুঁজুন বা গ্রাম পঞ্চায়েত/ওয়ার্ড অফিসে যোগাযোগ করুন। (শুধুমাত্র মধ্যপ্রদেশ এর বাসিন্দার ক্ষেত্রেই এই প্রকল্প উপলব্ধ)

2. আধার লিঙ্ক করুন: E-Kyc প্রক্রিয়া সম্পন্ন করুন এবং আপনার আইডির সাথে আপনার আধার কার্ড সংযুক্ত বা লিঙ্ক করুন।

3. ফর্ম পূরণ করুন: রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্প থেকে আপনাকে একটি আবেদনপত্র দেওয়া হবে। এই ফর্মে আপনার সমস্ত তথ্য- নাম, ঠিকানা, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিবরণ সহ সঠিকভাবে পূরণ করুন।

4. প্রয়োজনীয় নথি প্রদান করুন: ফর্মের সাথে আপনার আধার কার্ড, আইডি, মোবাইল নম্বর, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিবরণ এবং একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংযুক্ত করুন।

5. জমা দিন এবং রসিদ সংগ্রহ করুন: উপস্থিত কর্মকর্তাদের কাছে সম্পূর্ণ ফর্ম এবং নথি পত্র গুলো জমা করুন। তারা আপনাকে একটি রসিদ বা রেফারেন্স নম্বর দেবে। এটি আপনার আবেদনের প্রমাণ হিসেবে সুরক্ষিত ভাবে রাখুন পরবর্তী প্রয়োজনে।

6. কবে টাকা পাবেন: আবেদনটি অনুমোদিত বা সঠিকভাবে ভেরিফাই হলে, স্কিম অনুযায়ী এর টাকা সরাসরি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আসবে।

আরও পড়ুনঃ Karmashree Prakalpa: পশ্চিমবঙ্গে শুরু হল কর্মশ্রী প্রকল্প। বাংলায় আর কেউ বেকার থাকবে না।

আরও পড়ুনঃ Ration Card Unit Verification: রেশন বন্টনে জারি হল নতুন নিয়ম! এবার অযোগ্যরা ধরা পরবে সহজেই।

Share This Article
Hello Friends, I am Achhir Ali Sub-Editor of News Connectors from Kolkata, West Bengal. I am a Blogger, Web Designer, Graphics Designer and Social Media Ads Expert. I am Working in this field since last 5 years.
Leave a comment